Header Ads

সালাতের দু‘আ ও যিকির

**** সালাতের দু‘আ ও যিকির ****
>>> তাকরীরে তাহরীমার পর দু‘আ <<<
اَللَّهُمَّ بَاعِدْ بَيْنِيْ وَبَيْنَ خَطَاياَيَ كَمَا بَاعَدتَّ بَيْنَ الْمَشْرِقِ وَالْمَغْرِبِ اَللَّهُمَّ نَقِّنِيْ مِنْ خَطَايَايَ كَمَا يُنَقَّى الثَّوْبُ الْأَبْيَضُ مِنَ الدَّنَسِ اَللَّهُمَّ اغْسِلْنِيْ مِنْ خَطَايَايَ بِالْمَاءِ وَالثَّلْجِ وَالْبَرْدِ
আল্লা-হুম্মা বা-‘য়েদ বায়নি- ওয়া বায়না খাত্বো-ইয়া-ইয়া কামা বা-‘আত্তা বায়নাল্ মাশ্ রিক্বী ওয়াল্ মাগ্ রিব্, আল্লা-হুম্মা নাক্কিনি- মিন্ খাত্বো-ইয়া-ইয়া কামা ইউনাক্ক্ ক্বাছ্ ছাওবুল আব্ইয়াদ্বু মিনাদ্ দানাস্, আল্লা-হুম্মাগ্ সিল্ নি- মিন্ খাত্বো-ইয়া-ইয়া বিল্ মা-ই’ ওয়াছ্ ছাল্ জি, ওয়াল্ বারদ্
হে আল্লাহ! তুমি আমার ও আমার পাপের মাঝে দূরত্ব সৃষ্টি করে দাও যেমন দূরত্ব সৃষ্টি করে দিয়েছ পূর্ব ও পশ্চিমের মধ্যে। হে আল্লাহ! তুমি আমাকে আমার পাপ থেকে পবিত্র কর যেমন সাদা কাপড় থেকে ময়লা পরিস্কার করা হয়। হে আল্লাহ! আমাকে পানি, বরফ ও শিশির দ্বারা আমার পাপ ধৌত কর। (বুখারী, মুসলিম)
.
سُبْحَانَكَ اللَّهُمَّ وَبِحَمْدِكَ وَتَبَارَكَ اسْمُكَ وَتَعَالَى جَدُّكَ وَلَا إِلَهَ غَيْرُكَ
সুব্ হা-নাকা আল্লা-হুম্মা ওয়া বিহাম্ দিকা ওয়াতাবা-রা কাস্ মুকা ওয়াতা ‘আ-লা জাদ্দুকা ওয়া লা— ইলাহা গায়রুক্
পবিত্রতা ও মহিমা তোমার, হে আল্লাহ! আর প্রশংসাও তোমার এবং তোমার নাম বরকতময় আর তোমার মর্যাদা অতি উচ্চ আর তুমি ব্যতীত সত্যিকার কোন ইলাহ নেই। (আবু দাউদ, তিরমিযি)
.
>>> রুকুর দু‘আ ও যিকর <<<
سُبْحَانَ رَبِّيِ الْعَظِيمِ সুব্ হা-না রাব্বিয়াল্ আযী-ম
আমি মহান রবের পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি। আবু দাউদ, তিরমিযি
سُبْحَانَكَ اللَّهُمَّ رَبَّناَ وَبِحَمْدِكَ اَللَّهُمَّ اغْفِرْ لِيْ
সুব্ হা-নাকা আল্লা-হুম্মা রাব্বানা- ওয়া বিহাম্ দিকা আল্লা-হুম্মাগ্ ফির্ লী
আমাদের রব হে আল্লাহ! তোমার পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি আর প্রশংসা তোমার, হে আল্লাহ! আমাকে ক্ষমা কর। বুখারী, মুসলিম, মিশকাত
>>> রুকু থেকে সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে পঠিতব্য দু‘আ <<<
سَمِعَ اللهُ لِمَنْ حَمِدَه সামি‘আল্লা-হু লিমান হামিদাহ্
আল্লাহ শুনলেন যে তার প্রশংসা করল। বুখারী
رَبَّنَا وَلَكَ الْحَمْدُ حَمْداً كَثِيراً طَيِّباً مُبَارَكاً فِيهِ مِلْءَ السَّماَوَاتِ وَالأَرْضِ وَمِلْءَ ما بَيْنَهُمَا وَمِلْءَ مَا شِئْتَ مِنْ شَيْءٍ بَعْدُ
রাব্বানা- ওয়ালাকাল্ হাম্ দ্, হাম্ দান্ কাছি-রান্ ত্বাইয়্যেবান্ মুবা-রাকান্ ফি-হ্ মিল্আস্ সামা-ওয়া-তি ওয়াল্ আরদ্বি ওয়া মিল্আ মা- বায়না হুমা- ওয়া মিল্আ মা- শী‘তা মিন্ শাইয়িন বা‘দ্
হে আমার রব! সমস্ত প্রশংসা তোমারই জন্য, অত্যাধিক পবিত্র প্রশংসা যাতে বরকত নিহিত আছে, যা আকাশ ও জমীনে পূর্ণ্ করে দেয় এবং তাদের উভয়ের মধ্যবর্তী স্থান পূর্ণ্ করে দেয় আর এছাড়াও আপনি যা ইচ্ছা করেন তাও পূর্ণ্ করে দেয়। বুখারী, মুসলিম
>>> সাজদার দু‘আ <<<
سُبْحَانَ رَبِّيَ الاَعْلَى সুব্ হা-না রাব্বিয়াল্ ‘আলা
আমি মহান রবের পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি। আবু দাউদ, তিরমিযি
سُبْحَانَكَ اللَّهُمَّ رَبَّناَ وَبِحَمْدِكَ اَللَّهُمَّ اغْفِرْ لِيْ
সুব্ হা-নাকা আল্লা-হুম্মা রাব্বানা- ওয়া বিহাম্ দিকা আল্লা-হুম্মাগ্ ফিরলী
আমাদের রব হে আল্লাহ! তোমার পবিত্রতা ও মহিমা বর্ণনা করছি আর প্রশংসা তোমার, হে আল্লাহ! আমাকে ক্ষমা কর। বুখারী, মুসলিম, মিশকাত
>>> দুই সাজদার মধ্যে পঠিতব্য দু‘আ <<<
رَبِّ اغْفِرْلِيْ রাব্বিগ্ ফিরলি
হে আমার প্রভু! আমাকে ক্ষমা কর। নাসাঈ, মিশকাত
اَللَّهُمَ اغْفِرْلِيْ، وَارْحَمْنِيْ وَاهْدِنِيْ وَعَافِنِيْ وَارْزُقْنِيْ وَاجْبُرْنِيْ
আল্লা-হুম্মাগ্ ফিরলি-, ওয়ার্ হামনি-, ওয়াহ দিনি-, ওয়া ‘আ-ফিনি-, ওয়ার্ যুক্বনি-, ওয়াজ্ বুর্ নি-
হে আল্লাহ! আমাকে ক্ষমা করা, আমাকে দয়া কর, আমাকে হিদায়াত দাও, আমাকে নিরাপত্তা দাও, আমাকে জীবিকা দাও, আমার ক্ষয়ক্ষতি পূরণ করে দাও। আবু দাউদ, তিরমিযি
>>> তাশাহহুদ বা আত্তাহিয়্যাহু <<<
اَلتَّحِيَاتُ لِلَّهِ وَالصَّلَوَاتُ وَالطَّيِّبَاتُ، اَلسَّلامُ عَلَيْكَ أَيُّهَا النَّبِيُّ وَرَحْمَةُ اللَّهِ وَبَرَكَاتُهُ، اَلسَّلامُ عَلَيْنَا وَعَلَى عِبَادِ اللهِ الصَالِحِينَ، أَشْهَدُ أَنْ لاَ إِلَهَ إِلاَّ اللهُ وأَشهدُ أَنَّ مُحَمَّداً عبْدُهُ وَرَسُولُهُ
আত্তাহিয়্যা-তু লিল্লা-হি ওয়াস্ সালাওয়া-তু ওয়াত্ব্ ত্বাইয়্যিবা-ত্, আস্ সালা-মু ‘আলাইকা আইয়্যুহান্ নাবিয়্যু ওয়া রাহ্ মাতুল্লা-হি ওয়া বারাকা-তু, আস্ সালা-মু ‘আলাইনা- ওয়া ‘আলা ইবা-দিল্লা-হিস্ সো-লিহি—ন, আশ্ হাদু আল্লা—ইলা-হা ইল্লালা-হু ওয়া আশ্ হাদু আন্না মুহাম্মাদান্ আব্দুহু ওয়া রাসূলু
মৌখিক, শারীরিক ও আর্থিক সমস্ত ইবাদত আল্লাহর জন্য। হে নবী, আপনার উপর শান্তি বর্ষিত হোক এবং আল্লাহ রহমত ও বরকত বর্ষিত হোক। আমাদের উপর এবং আল্লাহর নেক বান্দাদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক। আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ব্যতীত কোন সত্য উপাস্য নেই আরো সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর বান্দা ও তাঁর রাসূল। বুখারী, মুসলিম, মিশকাত
>>> রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতি দরূদ পাঠ <<<
اَللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ، كَمَا صَلَيْتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيمَ، إِنَّكَ حَمِيدٌ مَجِيدٌ، وَ بَارِكْ عَلَى مُحَمَّدٍ وَعَلَى آلِ مُحَمَّدٍ كَمَا بَارَكْتَ عَلَى إِبْرَاهِيمَ وَعَلَى آلِ إِبْرَاهِيمَ إِنَّكَ حَمِيْدٌ مَجِيْدٌ
আল্লা-হুম্মা সোল্লি ‘আলা মুহাম্মাদ, ওয়া ‘আলা আ-লি মুহাম্মাদ, কামা সোল্লাইতা ‘আলা ইব্রা-হি-ম্, ওয়া‘আলা আ-লি ইব্রা-হি-ম্, ইন্নাকা হামি-দুম্ মাজি-দ্, আল্লা-হুম্মা বা-রিক্ ‘আলা মুহাম্মাদ্, ওয়া ‘আলা আ-লি মুহাম্মাদ্, কামা- বা-রাক্ তা ‘আলা ইব্রা-হি-ম্, ওয়া‘আলা আ-লি ইব্রা-হি-ম্, ইন্নাকা হামি-দুম্ মাজি-দ্
হে আল্লাহ! তুমি মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও তাঁর পরিবারবর্গের উপর রহমত বর্ষণ কর, যেমন তুমি ইবরাহীম আলাইহিস্ সালাম ও তাঁর পরিবারবর্গের উপর রহমত বর্ষণ করেছ, হে আল্লাহ! তুমি মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও তাঁর পরিবারবর্গের উপর বরকত নাযিল কর যেমন তুমি ইবরাহীম আলাইহিস্ সালাম ও তাঁর পরিবারবর্গের উপর বরকত নাযিল করেছ। বুখারী, মুসলিম, মিশকাত
>>> সালাম ফিরানোর পূর্বে দু‘আ <<<
اَللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوْذُ بِكَ مِنْ عَذَابِ الْقَبْرِ وَ مِنْ عَذَابِ جَهَنَّمَ وَمِنْ شَرِّ فِتْنَةِ الْمَسِيْحِ الدَّجَّالِ وَمِنْ فِتْنَةِ الْمَحْيَا وَالْمَمَاتِ
আল্লা-হুম্মা ইন্নী- আ‘উ-যুবিকা মিন্ আযাবিল্ ক্বাবর্, ওয়া মিন্ আযা-বি জাহান্নাম্, ওয়া মিন্ শার্ রি ফিত্ নাতিল্ মাসি-হিদ্ দাজ্জা-ল্, ওয়া মিন্ ফিত্ নাতিল্ মাহ্ইয়া- ওয়াল্ মামাত্
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে পানাহ চাচ্ছি কবরের শাস্তি হতে, জাহান্নামের শাস্তি হতে, কানা দাজ্জালের অনিষ্ট ফিতনা হতে, জীবন মৃত্যুর ফিতনা হতে। বুখারী, মুসলিম
اللهم إني أعوذ بك من المأثَم والمغرَم
আল্লা-হুম্মা ইন্নী- আ‘উযুবিকা মিনাল্ মা-‘ছামি ওয়াল মাগ্ রাম্
হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে পানাহ চাচ্ছি পাপ ও ঋণের বোঝা হতে। বুখারী, মুসলিম
اللهم إني ظلمت نفسي ظلمًا كثيرًا، ولا يغفر الذنوب إلا أنت، فاغفر لي مغفرة من عندك، وارحمني إنك أنت الغفور الرحيم
আল্লা-হুম্মা ইন্নী- য্বো-লাম্ তু নাফ্ সী- যুলমান্ কাছি-রা, ওয়া লা- ইয়াগ্ ফিরুয্ যুনুবা ইল্লা আন্ত, ফাগ্ ফির্ লি- মাগ্ ফিরাতাম্ মিন্ ইন্ দিক্, ওয়ারহাম্ নি- ইন্নাকা আন্তাল্ গাফুরুর্ রাহি-ম্
হে আল্লাহ! আমি নিজের উপর অনেক পাপ করেছি, আপনি ছাড়া সে পাপ ক্ষমা করার আর কেউ নেই, আপনার পক্ষ হতে আমাকে ক্ষমা করুন এবং আমার উপর রহমত করুন, নিশ্চয়ই আপনি ক্ষমাশীল ও পরম দয়ালু। বুখারী, মুসলিম
>>> সালাম ফিরানো <<<
اَلسَّلاَمُ عَلَيْكُمْ وَرَحْمَةُ اللهِ
আস্ সালা-মু আলাইকুম্ ওয়া রাহমাতুল্লা-হ
আপনাদের উপর শান্তি ও আল্লাহর রহমত বর্ষিত হোক। আবু দাউদ, নাসাঈ
>>> বিতরের কুনুত <<<
اللَّهُمَّ اهْدِنِيْ فِيْمَنْ هَدَيْتَ، وَعَافِنِيْ فِيْمَنْ عَافَيْتَ، وَتَوَلَّنِيْ فِيْمَنْ تَوْلَّيْتَ، وَبَارِكْ لِيْ فِيْمَا أَعْطَيْتَ، وَقِنِيْ شَرَّ مَا قَضَيْتَ، إِنَّكَ تَقْضِيْ وَلَا يُقْضَى عَلَيْكَ، إِنَّهُ لَا يَذِلُّ مَنْ وَّاَلَيْتَ وَلَايَعِزُّ مَنْ عَادَيْتَ، تَبَارَكْتَ رَبَّنَا وَتَعَالَيْتَ
আল্লা-হুম্মাহ্ দিনি- ফি-মান্ হাদাইত্, ওয়া ‘আ-ফিনি- ফিমান্ ‘আ-ফাইত্, ওয়া তাওয়াল্লানি- ফি-মান্ তাওয়াল্লায়ত্, ওয়া বা-রিক্ লি- ফি-মা- আত্বাইত্, ওয়াক্বিনি- শার্ রা মা- ক্বাদ্বাইত্, ইন্নাকা তাক্ব্ দি- ওয়া লা- ইউক্কদ্বা আলাইক্, ইন্নাহু লা- ইয়াযিল্লু মাও ওয়ালাইত্, ওয়া লা- ইয়া‘ইজ্জু মান্ ‘আ-দাইত্, তাবা-রাকতা রাব্বানা- ওয়া তা‘আ-লাইত্
হে আল্লাহ! যাদের তুমি হেদায়েত দান করেছো তাদের সাথে আমাকে হেদায়েত দান কর এবং যাদের তুমি নিরাপদ রেখেছ তাদের সাথে আমাকে নিরাপদ রাখ এবং যাদের তুমি অভিভাবকত্ত করেছ তাদের সাথে তুমি আমার অভিভাবক হও আর তুমি আমাকে যা দান করেছ তাতে বরকত দাও এবং তুমি আমাকে রক্ষা তার অনিষ্ট হতে যা তুমি নির্ধারণ করেছ কারণ তুমিই ভাগ্য নির্ধারণ কর আর তোমার উপর কেউ ভাগ্য নির্ধারণ করার নাই, তুমি যার বন্ধু হয়েছ সে কখনও অপমানিত হবে না এবং তুমি যার শত্রুতা করছ সে কখনও সম্মানিত হবে না, হে আমাদের রব! তুমি বরকতময় ও সুউচ্চ। আবু দাউদ, তিরমিযি, ইবনে মাজাহ
>>> জানাযার সালাতের দু‘আ <<<
اللَّهُمَّ اغْفِرْ لِحَيِّنَا وَمَيِّتِنَا وَشَاهِدِنَا وَغَائِبِنَا وَصَغِيرِنَا وَكَبِيرِنَا وَذَكَرِنَا وَأُنْثَانَا، اللَّهُمَّ مَنْ أَحْيَيْتَهُ مِنَّا فَأَحْيِهِ عَلَى الإِسْلاَمِ، وَمَنْ تَوَفَّيْتَهُ مِنَّا فَتَوَفَّهُ عَلَى الإِيمَانِ, اللَّهُمَّ لاَ تَحْرِمْنَا أَجْرَهُ، وَلاَ تَفْتِنَّا بَعْدَهُ
আল্লা-হুম্মাগ্ ফির্ লি হাইয়িনা- ওয়া মাইয়িতিনা- ওয়া শা-হিদিনা- ওয়া গা-‘ইবিনা- ওয়া সোগী-রিনা- ওয়া কাবীরিনা- ওয়া যাকারিনা- ওয়া উন্ ছা-না- আল্লা-হুম্মা মান্ আহ্ইয়াতাহু মিন্না ফাআহ্ ইহি আলাল ইসলাম, ওয়া মান্ তাওয়াফ্ ফাইতাহু মিন্না- ফাতাওয়াফ্ ফাহু আলাল ঈমান্, আল্লা-হুম্মা লা- তাহরিম্ না- আজরাহ, ওয়া লা- তাফ তিন্না- বা’দা
হে আল্লাহ! আমাদের জীবিত ও মৃত, উপস্থিত-অনুপস্থিত, ছোট-বড়, নর-নারী সকলকে ক্ষমা কর। হে আল্লাহ! আমাদের মাঝে যাদের জীবিত রাখবে তাদেরকে ইসলামের উপর জীবিত রাখ, আর যাদেরকে মৃত্যু দান করবে তাদেরকে ইমানের উপর মৃত্যু দান কর। হে আল্লাহ! আমাদেরকে তার নিকী হতে বঞ্চিত কর না এবং তার মৃত্যু পর আমাদেরকে পথভ্রষ্ট করো না। তিরমিযি, আহমদ
>>> কবর যেয়ারতের দু‘আ <<<
السَّلاَمُ عَلَيْكُمْ دَارَ قَوْمٍ مُؤْمِنِينَ وَإِنَّا إِنْ شَاءَ اللَّهُ بِكُمْ لاَحِقُونَ
আস্ সালা-মু ‘আলাইকুম্ দা-রা কাওমিন্ মু-মিনি-ন্, ওয়া ইন্না- ইন্ শা—আল্লা-হু বিকুম্ লা-হেকু-ন্
হে ক্ববরবাসী মুমিনগণ, আপনাদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক আর অবশ্যই আমরা আপনাদের সাথে মিলিত হব ইনশাআল্লাহ। ছহীহ মুসলিম, ‘জানাযা’ অধ্যায়, হা/ ২৪৯
السَّلَامُ عَلَيْكُمْ أَهْلَ الدِّيَارِ مِنَ المُؤْمِنِيْنَ وَالمُسْلِمِيْنَ وَإِنَّا إِنْ شَاءَ اللهُ لَلَاحِقُوْنَ أَسْأَلُ اللهَ لَنَا وَلَكُمْ العَافِيَةَ
আস্ সালা-মু ‘আলাইকুম্ আহলাদ্ দিয়া-রি মিনাল্ মু-মিনি-না ওয়াল্ মুস্ লিমি-ন্, ওয়া ইন্না— ইন্ শা—আল্লাহু লালা-হিকু—ন্, আস্ আলুল্লা-হা লানা- ওয়া লাকুমুল্ ‘আ-ফিয়া
অত্র জায়গায় বসবাসকারী মুমিন ও মুসলিমগণ, আপনাদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক আর অবশ্যই আমরাও আপনাদের সাথে মিলিত হব, ইনশাল্লা-হ। আমাদের ও আপনাদের জন্য আল্লাহর নিকট পরিত্রাণ প্রার্থনা করছি। ছহীহ মুসলিম
>>> সূরা আল-ফাতিহা <<<
أَعُوْذُ بِاللهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيْمِ
আউ-যু বিল্লা-হি মিনাশ্ শাইত্বো-নির্ রাজি–ম্
আমি বিতাড়িত শয়তান থেকে আল্লাহর পানাহ চাচ্ছি।
بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ
বিস্ মিল্লা-হির্ রাহ্ মা-নির্ রাহি—ম্
পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।
الْحَمْدُ لِلَّهِ رَبِّ الْعَالَمِينَ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ مَالِكِ يَوْمِ الدِّينِ إِيَّاكَ نَعْبُدُ وَإِيَّاكَ نَسْتَعِينُ اهْدِنَا الصِّرَاطَ الْمُسْتَقِيمَ صِرَاطَ الَّذِينَ أَنْعَمْتَ عَلَيْهِمْ غَيْرِ الْمَغْضُوبِ عَلَيْهِمْ وَلا الضَّالِّينَ
আল্ হাম্ দু লিল্লা-হি রাব্বিল্ আ-লামি—ন্, আর্ রাহ্ মা-নির্ রাহি—ম্, মা-লিকি ইয়াওমিদ্ দি—ন্, ইয়া-কা না’বুদু ওয়াইয়া-কা নাস্ তা’ই-ন্, ইহ্ দিনাস্ব্ স্বিরা-ত্বোল্ মুস্তাক্বি—ম্, স্বিরা-ত্বোল্লাযি-না আন্‘আম্ তা আলাইহিম্ গাইরিল্ মাগ্ দ্বু-বি আলাইহিম্ ওয়ালাদ্ব্ দ্বো—লি—ন্
সকল প্রশংসা বিশ্ব জগতের রব আল্লাহর জন্য, তিনি পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু, বিচার দিবসের মালিক, আমরা শুধুমাত্র তোমারই ইবাদত করি এবং শুধুমাত্র তোমারই নিকট সাহায্য চাই, আমাদেরকে সরল পথ দেখাও, তাদের পথ যাদের প্রতি আপনি অনুগ্রহ করেছেন, যাদের উপর আপনার ক্রোধ আপতিত হয়নি এবং যারা পথভ্রষ্টও নয়।
>>> আয়াতুল কুরসি <<<
اللَّهُ لا إِلَهَ إِلا هُوَ الْحَيُّ الْقَيُّومُ لا تَأْخُذُهُ سِنَةٌ وَلا نَوْمٌ لَهُ مَا فِي السَّمَاوَاتِ وَمَا فِي الأرْضِ مَنْ ذَا الَّذِي يَشْفَعُ عِنْدَهُ إِلا بِإِذْنِهِ يَعْلَمُ مَا بَيْنَ أَيْدِيهِمْ وَمَا خَلْفَهُمْ وَلا يُحِيطُونَ بِشَيْءٍ مِنْ عِلْمِهِ إِلا بِمَا شَاءَ وَسِعَ كُرْسِيُّهُ السَّمَاوَاتِ وَالأرْضَ وَلا يَئُودُهُ حِفْظُهُمَا وَهُوَ الْعَلِيُّ الْعَظِيمُ
আল্লা-হু লা— ইলাহা ইল্লা হুওয়াল্ হাইউল্ ক্বাইউ—ম্, লা- তাখুযুহু সিনাতু- ওয়া লা- নাউ—ম্, লাহু মা- ফিস্ সামা-ওয়া-তি ওয়া মা- ফিল্ আরদ্ব্, মান্ যাল্লাযি- ইয়াশ্ ফাউ’ ইন্ দাহু— ইল্লা- বিইয্নি, ইয়ালামু মা- বাইনা আইদি-হিম্ ওয়া মা- খাল্ ফাহুম্, ওয়া লা- ইয়ুহিত্বো-না বি শাইয়িম্ মিন্ ইল্ মিহি— ইল্লা- বিমা- শা—আ, ওয়াসি‘আ কুর্ সিউহুস্ সামা-ওয়া-তি ওয়াল্ আরদ্ব্, ওয়া লা- ইয়াউদুহু হিফজুহুমা- ওয়া হুয়াল্ আলি-উল্ আযি—ম্
আল্লাহ, তিনি ছাড়া কোন সত্য ইলাহ নেই, তিনি চিরঞ্জীব, সুপ্রতিষ্ঠিত ধারক, তাঁকে তন্দ্রা ও নিদ্রা স্পর্শ করে না, তাঁর জন্যই আসমানসমূহে যা আছে এবং যমীনে যা আছে সবই, কে আছে, যে তাঁর অনুমতি ছাড়া তাঁর নিকট সুপারিশ করবে? তিনি জানেন যা আছে তাদের সামনে এবং যা আছে তাদের পেছনে, আর তারা তাঁর জ্ঞানের সামান্য পরিমাণও আয়ত্ব করতে পারে না, তবে তিনি যা চান তা ছাড়া, তাঁর কুরসী আসমানসমূহ ও যমীন পরিব্যাপ্ত করে আছে এবং এ দুটোর সংরক্ষণ তাঁর জন্য বোঝা হয় না, আর তিনি সুউচ্চ, মহান। আল-বাকারা, ২/২৫৫
>>> সুরা কাফেরুন <<<
قُلْ يَا أَيُّهَا الْكَافِرُونَ لا أَعْبُدُ مَا تَعْبُدُونَ وَلا أَنْتُمْ عَابِدُونَ مَا أَعْبُدُ وَلا أَنَا عَابِدٌ مَا عَبَدْتُمْ وَلا أَنْتُمْ عَابِدُونَ مَا أَعْبُدُ لَكُمْ دِينُكُمْ وَلِيَ دِينِ
ক্বূল্ ইয়া— আইউহাল্ কা-ফেরু—ন, লা— আ’বুদু মা- তা’বুদু—ন, ওয়া লা— আনতুম্ ‘আ-বেদু-না মা— আ’বুদ্, ওয়ালা— আ-না- ‘আ-বেদুন্ মা- আবাদতুম্, ওয়ালা— আনতুম্ ‘আ-বেদু-না মা— আ’বুদ্, লাকুম্ দি-নুকুম্ ওয়ালি-ইয়া দি—ন
বলুন, হে অবিশ্বাসীগণ! আমি ইবাদত করি না যাদের তোমরা ইবাদত কর এবং তোমরা ইবাদতকারী নয় যার আমি ইবাদত করি এবং আমি ইবাদতকারী নই যাদের তোমরা ইবাদত কর, এবং তোমরা ইবাদতকারী নয় যার আমি ইবাদত করি, তোমাদের জন্য তোমাদের দ্বীন এবং আমার জন্য আমার দ্বীন।
>>> সূরা ইখলাস <<<
قُلْ هُوَ اللَّهُ أَحَدٌ اللَّهُ الصَّمَدُ لَمْ يَلِدْ وَلَمْ يُولَدْ وَلَمْ يَكُنْ لَهُ كُفُوًا أَحَدٌ
ক্বুল্ হুওয়াল্লা-হু আহাদ্, আল্লা-হুস্ সামাদ্, লাম্ ইয়ালিদ্ ওয়ালাম্ ইউ-লাদ্, ওয়ালাম্ ইয়াকুল্লাহু কুফুওয়ান্ আহাদ্
বলুন, তিনি আল্লাহ এক অদ্বিতীয়, আল্লাহ অমুখাপেক্ষী, তিনি কাউকে জন্ম দেননি আর তাঁকেও জন্ম দেয়া হয়নি, আর তাঁর সমতুল্য কেউই নেই।
>>> সূরা ফালাক <<<
قُلْ أَعُوذُ بِرَبِّ الْفَلَقِ مِنْ شَرِّ مَا خَلَقَ وَمِنْ شَرِّ غَاسِقٍ إِذَا وَقَبَ وَمِنْ شَرِّ النَّفَّاثَاتِ فِي الْعُقَدِ وَمِنْ شَرِّ حَاسِدٍ إِذَا حَسَدَ
ক্বুল্ আউ-যু বিরাব্বিল্ ফালাক্, মিন্ শার্ রি মা- খালাক্, ওয়া মিন্ শার্ রি গা-সিকিন্ ইযা- ওয়াক্বাব্, ওয়া মিন্ শার্ রি নাফ্ ফা-ছা-তি ফিল্ উ’কাদ্, ওয়ামিন্ শার্ রি হা-সিদিন্ ইযা- হাসাদ্
বলুন, আমি পানাহ চাই ঊষার রবের কাছে, তিনি যা সৃষ্টি করেছেন তার অনিষ্ট থেকে, আর রাতের অন্ধকারের অনিষ্ট থেকে যখন তা গভীর হয়, আর গিরায় ফুঁ-দানকারী নারীদের অনিষ্ট থেকে এবং হিংসুকের অনিষ্ট থেকে যখন সে হিংসা করে।
>>> সূরা নাস <<<
قُلْ أَعُوذُ بِرَبِّ النَّاسِ مَلِكِ النَّاسِ إِلَهِ النَّاسِ مِنْ شَرِّ الْوَسْوَاسِ الْخَنَّاسِ الَّذِي يُوَسْوِسُ فِي صُدُورِ النَّاسِ مِنَ الْجِنَّةِ وَالنَّاسِ
ক্বুল্ আউ-যু বিরাব্বিন্ না—স্, মালিকিন্ না—স্, ইলাহিন্ না—স্, মিন্ শার্ রিল্ ওয়াস্ ওয়া-সিল্ খান্না না—স্, আল্লাযি ইউওয়াস্ ই-সু ফি- সুদু-রিন্ না—স্, মিনাল্ জিন্নাতি ওয়ান্ না—স্
বলুন, আমি পানাহ চাই মানুষের রব কাছে, মানুষের মালিক, মানুষের ইলাহর কাছে, দ্রুত আত্মগোপন কারী কুমন্ত্রণা দাতার অনিষ্ট থেকে, যে মানুষের অন্তরসমূহে কুমন্ত্রণা দেয়, জিন ও মানুষের মধ্যে থেকে।


The post সালাতের দু‘আ ও যিকির appeared first on BDislam.info.



from BDislam.info https://ift.tt/2DKltID

No comments

Powered by Blogger.