Header Ads

বেপর্দা নারী মানেই অহংকারী।

>>> বেপর্দা নারী <<<
বেপর্দা নারী মানেই অহংকারী। অহংকারী কারো জন্য স্বামীর আনুগত্য বজায় রাখা খুবই কষ্টকর আর এদের মাঝে খুব কম সংখ্যক নারীই জান্নাতে প্রবেশ করবে। অথচ শিক্ষিত/অশিক্ষিত, আলেম হোক আর জালেম হোক, শতকরা ১০০ ভাগ পুরুষ স্ত্রীর কাছ থেকে আনুগত্য কামনা করে এবং স্ত্রীর অবাধ্যতাকে ঘৃণা করে।
একবার এক সফরে রাসুল (ﷺ) সাহাবাদেরকে নিয়ে একটা পাহাড়ে উঠলেন। সেখানে হঠাৎ তারা একটা কাক দেখতে পেলেন, যার পা ও ঠোট ছিলো লাল। এই ধরণের কাক আসলে খুবই বিরল, দেখতে পাওয়া যায় না বললেই চলে। সাহাবারা এতো বিরল একটা জিনিস দেখে আশ্চর্য হয়ে বলাবলি করতে লাগলেন। রাসুল (ﷺ) বলেন,
وَشَرُّ نِسَائِكُمُ الْمُتَبَرِّجَاتُ الْمُتَخَيِّلاَتُ وَهُنَّ الْمُنَافِقَاتُ لاَ يَدْخُلُ الْجَنَّةَ مِنْهُنَّ إِلاَّ مِثْلُ الْغُرَابِ الأَعْصَمِ
তোমাদের সবচেয়ে খারাপ মেয়ে হলো যারা বেপর্দা, অহংকারী, কপট নারী, তাদের মধ্যে লাল রঙের ঠোঁট ও পা-বিশিষ্ট কাকের মত (বিরল) সংখ্যক জান্নাত যাবে। (বাইহাকী ১৩২৫৬, সহীহ)


The post বেপর্দা নারী মানেই অহংকারী। appeared first on BDislam.info.



from BDislam.info https://ift.tt/2AoMaPS

No comments

Powered by Blogger.