Header Ads

যারা মসজিদকে অদিক ভালবাসে

যারা মসজিদকে অধিক ভালোবাসে তারা কিয়ামতের দিন আল্লাহর ছায়ায় অবস্থান করবে, যেদিন আল্লাহর ছায়া ছাড়া আর কোন ছায়া থাকবে না। প্রমাণ:আবু হুরাইরা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “সাত ব্যক্তিকে আল্লাহ তা‘আলা তার ছায়ায়আশ্রয় দেবেন যেদিন তারা ছায়া ছাড়া আর কোন ছায়া থাকবে না। এক- ন্যায় পরায়ণ বাদশা, দুই- ঐ যুবক, যে তার যৌবনকে আল্লাহর ইবাদাতে ক্ষয় করল, তিন- ঐ লোক যার অন্তর আল্লাহর ঘর মসজিদের সাথে সম্পৃক্ত, চার- দুই লোক যারা উভয়ে পরস্পরকে আল্লাহর জন্য ভালোবাসতো এবং তারই ভিত্তিতে একত্র হত এবং তারই ভিত্তিতে পৃথক হত। পাঁচ- ঐ ব্যক্তি যাকে কোন রূপসীও সম্ভ্রান্ত নারী তার সাথে অপকর্মের প্রতি ডাকলে, সে বলে আমি আল্লাহকে ভয় করি। ছয়-ঐ ব্যক্তি যে এত গোপনে দান করল, তার বাম হাত জানে না, ডান হাত কি দান করল। সাত- ঐ ব্যক্তি যে নির্জনে আল্লাহকে স্মরণ করল এবং তার চক্ষুদ্বয় আল্লাহর ভয়ে কাঁদল”। মুসলিম এর বর্ণিত শব্দাবলী- «ورجل مُعلّق بالمسجد إذا خرج منه حتى يعود إليه ». “ঐ লোক যে মসজিদ থেকে বের হলেতার অন্তর মসজিদের সাথে সম্পৃক্ত থাকে যতক্ষণ না সে মসজিদে ফিরে না আসে”।[বুখারি ও মুসলিম, সহীহ বুখারি, আযান অধ্যায়, পরিচ্ছেদ: সালাতের অপেক্ষায় মসজিদে বসা বিষয়ে আলোচনা,হাদিস, ৬৬০; কিতাবুয যাকাত, ডান হাতে দান করার ফযিলত, হাদীস ১৪২৩; সহীহ মুসলিম, যাকাত অধ্যায়, পরিচ্ছেদ গোপনে সদাকা প্রদানের ফযিলত, হাদিস: ১০৩১]ইমাম নববী রাহিমাহুল্লাহু «ورجل قلبه معلّق في المساجد» এ কথাটিরব্যাখ্যায় বলেন, “অর্থাৎ, অন্তরে মসজিদের প্রতি কঠিন ভালোবাসা বিদ্যমান থাকা এবং মসজিদে জামাআতের সাথে সালাত আদায়ের পাবন্দী করা। তবে এ কথার অর্থ সারাক্ষণ মসজিদে বসে থাকা নয়। [ সহীহ মুসলিমের উপর ইমাম নববীর ব্যাখ্যা, হাদিস নং, ১২৬/৭।]

No comments

Powered by Blogger.